রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০||২৮ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২:৫৯ অপরাহ্ন  coxbazar24news@gmail.com

প্রচ্ছদ » সারা দেশ » করোনায় মৃত্যু ১২শ' ও শনাক্ত ৯০ হাজার ছাড়ালো

করোনায় মৃত্যু ১২শ' ও শনাক্ত ৯০ হাজার ছাড়ালো

আপডেট : ১৫ জুন, ২০২০ , সময়ঃ ০৫:১০ অপরাহ্ন

ছবি সংগৃহীত

জাতীয় ডেস্ক

দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের আজ শততম দিন। এ দিনে আরও তিন হাজার ৯৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা শনাক্ত হলেন ৯০ হাজার ৬১৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো এক হাজার ২০৯ জনে।  গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১৫ হাজার ২৯৭ জন। গতকাল থেকে আজ সুস্থতার হার বেশি, কারণ বাসায় এবং উপসর্গবিহীন যারা সুস্থ হয়েছেন তাদের এই তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে। এই তথ্য আইইডিসিআর সরবরাহ করেছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৩৪ হাজার ২৭ জন।

সোমবার (১৫ জুন) বেলা আড়াইটায় কোভিড-১৯ সম্পর্কিত সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনের আয়োজন করা হয়। সেখানে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৫ হাজার ৭৩৩টি, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৩৮টি। এখন পর্যন্ত পাঁচ লাখ ১৬ হাজার ৫০৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৯৯ জন। এখন পর্যন্ত মোট ৯০ হাজার ৬১৯ জন শনাক্ত হয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৬১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৩৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

নাসিমা সুলতানা জানান, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৩২ জন পুরুষ এবং ছয় জন নারী। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে পাঁচ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৫ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে পাঁচ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিন জন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তিন জন রয়েছেন। 

অঞ্চল বিবেচনায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১২ জন, সিলেট বিভাগের ছয় জন, রংপুর বিভাগের একজন এবং বরিশাল বিভাগের একজন রয়েছেন।

৩৮ জনের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ২৫ জন, বাসায় মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ জন এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয় দুই জনকে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৫৩৬ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১০ হাজার ২৬ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ২৯৫ জন, এখন পর্যন্ত মোট ছাড়া পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৮১৮ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে দুই হাজার ৯২২ জনকে। এখন পর্যন্ত তিন লাখ ২৩ হাজার ৩৫৮ জনকে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন তিন হাজার ৬৭ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন দুই লাখ ৬১ হাজার ৬৮৯ জন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬১ হাজার ৬৬৯ জন।